ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত ৪২শ ছাড়িয়েছে।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্ত ৪২শ ছাড়িয়েছে।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা উপজেলায় নতুন ০১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে।

এখন পর্যন্ত জেলায় এন্টিজেন ও পিসিআর ল্যাবের রিপোর্টে সর্বশেষ ৪২০০ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

এখন পর্যন্ত জেলায় ৩৭৪৫ জন করোনা ভাইরাস থেকে আরোগ্য লাভ করেছে। সর্বশেষ জেলায় ৬২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

মঙ্গলবার (২৯ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মুহাম্মদ একরাম উল্লাহ নিশ্চিত করেন।

গতকালের ঢাকা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন এন্ড রেফারেল সেন্টারের পিসিআর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবের ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের র‍্যাপিড এন্টিজেন ল্যাবের ১৬ টি রিপোর্টে নতুন আরও ০১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে কসবা উপজেলায় ০১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।

সর্বশেষ জেলায় ৪২০০ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮৪৫ জন, আখাউড়া উপজেলায় ৩২৪ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ১২৯ জন, নাসিরনগর উপজেলায় ১৩৭ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ২৪০ জন, নবীনগর উপজেলায় ৫৩৫ জন, সরাইল উপজেলায় ২০৯ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ৩৮৯ জন ও কসবা উপজেলায় ৩৯২ জন।

সর্বশেষ জেলায় ৩৭৪৫ জন রোগী করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছে। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ১৬৬৭ জন, আখাউড়া উপজেলায় ২৫৮ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ১১৯ জন, নাসিরনগর ১৩০ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ১৯৭ জন, নবীনগর উপজেলায় ৪৯৫ জন, সরাইল উপজেলায় ১৬৮ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ৩৪৯ জন ও কসবা উপজেলায় ৩৬২ জন।

সর্বশেষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ২০ জন, আখাউড়া উপজেলায় ১২ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ০৩ জন, নাসিরনগর উপজেলায় ০২ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ০৪ জন, নবীনগর উপজেলায় ১৩ জন, সরাইল উপজেলায় ০২ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ০৪ জন ও কসবা উপজেলায় ০২ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

এখন পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোভিড ভ্যাকসিনের জন্য রেজিষ্ট্রেশন হয়েছে ৮৩৫৬৬ জন।

এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৬৮৪২৯ জন ও দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪৮৪৫১ জন।

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এখন পর্যন্ত ৪২০০ জন আক্রান্তের মধ্যে ৩৭৪৫ জন সুস্থ হয়েছেন। কিন্তু এখনো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩৮৬ জন রোগী আইসোলেশনে আছে ও সেলফ আইসোলেশনে ৩৬৬ জন আছে। প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে চিকিৎসা পাচ্ছে ২০ জন রোগী।

এখন পর্যন্ত জেলায় ৩৭৮৩১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে৷ যার মধ্যে পাওয়া ৩৭৬৪৮ জনের করোনা ভাইরাসের রিপোর্টে জেলায় সর্বমোট ৪২০০ জন আক্রান্ত হয়েছে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Contact Us