ব্রাক্ষণবাড়িয়া দিয়ে ভারত ফেরত ৬ জনের করোনা পজিটিভ

ব্রাক্ষণবাড়িয়া দিয়ে ভারত ফেরত ৬ জনের করোনা পজিটিভ

ব্রাক্ষণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে যাত্রী যাতায়াত অব্যাহত রয়েছে। স্থলবন্দর দিয়ে আসা যাত্রীদের মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা আরও ছয়জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

তাছাড়া ফেরত যাত্রীদের কোয়ারেন্টিনে থেকে করোনা পজিটিভ হওয়ায় দুইজনের নমুনার ফলাফল দ্বিতীয় দফায়ও পজিটিভ এসেছে।

এই পর্যন্ত ভারত ফেরত মোট ৪৯ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হলো। আর তাঁদের মধ্যে ইতিমধ্যে ৩০ জনের শরীরে করোনা নেগেটিভ হয়েছেন।

তবে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আসা কোয়ারেন্টিনে থাকা রোগীদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট আধুনিক জেনারেল হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড সূত্রে জানা গেছে, নতুন আক্রান্ত লোকজনের মধ্যে চট্রগ্রাম বিভাগের ফেনী জেলার সোনাগাজীর এক ব্যক্তি (৪৬), সীতাকুণ্ড জেলার বাশবাড়ীয়ার এক ব্যক্তি (৪৬), মিরসরাইয়ের এক ব্যক্তি (৫৭), মহাখালী ওয়ালেস মেমোরিয়ালের (৩৮), রাঙ্গুনীয়ার এক ব্যক্তি (৩৯) এবং ঢাকা বিভাগের একজন মেডিক্যাল স্টুডেন্ট (২৫) রয়েছে৷

জেলার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে তাঁরা গত ১৬ মে ভারত থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রবেশ করেন। পরে তাঁদের জেলার একটি আবাসিক হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। সম্প্রতি করোনা পরীক্ষার জন্য তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

গত শুক্রবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪৩ জনের নমুনার ফলাফল পৌঁছে। তাঁদের মধ্যে ভারত ফেরত ০৬ জনের করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসে। ফলাফল হাতে পাওয়ার পর শনিবার সন্ধ্যার দিকে আক্রান্ত ৫ জনকে আবাসিক হোটেল থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেসনে নেওয়া হয়। বাকি একজন ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ জানান, ভারত থেকে আসা পুরোনো একজন ও নতুন করে আরও ৫ জন করোনা পজিটিভ হয়েছেন। তবে তাঁদের কারও মধ্যেই করোনার কোনো উপসর্গ নেই। জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ে ভারতীয় ধরণ পাওয়া গেছে, এমন কোনো ফলাফল তাঁরা পাননি।

তিনি আরও বলেন, আখাউড়া স্থলবন্দরেই সকল যাত্রীদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আর তার মধ্যে কেউ বাদ পড়লে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

স্থানীয় লোকজন এর সাথে কথা বলে জানা যায়, ভারত ফেরত যাত্রীদের জন্য আখাউড়া স্থলবন্দর খোলা রাখায় তারা মানসিক চাপে আছেন। তারা সরকারের কাছে দাবী জানান যাতে এই মহামারি করোনার জন্য আরও কিছুদিন বন্দরটি বন্ধ রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Contact Us