বিজয়নগরে জোরপূর্বক জায়গা দখলে রাখার অভিযোগ

বিজয়নগরে জোরপূর্বক জায়গা দখলে রাখার অভিযোগ

বিজয়নগর উপজেলার পাহারপুর এলাকার ইব্রাহিম মিয়ার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক এক ব্যক্তির জমি দখলে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (৩০) বিকেলে এই ঘটিনাকে কেন্দ্র করে এক মহিলাকে মারধোরের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় আহত রুনা বেগম (৩৫) উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের দাড়িয়াপুর গ্রামের লতিফপুর এলাকার আবুল হোসেনের স্ত্রী।

জোরপূর্বক জায়গা দখল ও তার স্ত্রীকে মারধোরে ব্যাপারে আবুল হোসেন জানান, তার বাবা মৃত আব্দুর নুরের চার ছেলে ও দুই মেয়ে। তারা প্রতিজন প্রায়ই ৬০ শতক জমি করে পৈতৃক সম্পত্তি পেয়েছি। আজ থেকে ২ বছর আগে তার ৯ শতক পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে তার ভাই ইব্রাহিম মিয়ার সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।

মূলত এ জায়গাটি আবুল হোসেনের কিন্তু জমির মালিকানা দাবি করেন ইব্রাহিম। স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিস বৈঠক ডাকা হলেও সেগুলো মানে না ইব্রাহিম। ওইদিন সকালে এ বিষয় নিয়ে তার স্ত্রী রুনা বেগমকে ইব্রাহিমের স্ত্রী নুরজাহান ও তার ছেলে শাহীন মিয়া এসে মারধোর করে৷

তারা রুনাকে মেরে বাম হাত ভেংগে ফেলে। বর্তমানে রুনা মুমূর্ষু অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া আধুনিক ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের অর্থোপিডিক্স বিভাগে ভর্তি নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন।

এব্যাপারে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মুহাম্মদ হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এব্যাপারে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। খোঁজ নিয়ে বিস্তারিত জানাতে পারবো। এখনও এব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আইনী সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Contact Us